বইমেলায় আসছে রেজাউল ইসলাম হাসুর ‘একটি ছুরি অথবা কুড়িটা ঘুমের পিল’

125 Views

Spread the love

অমর একুশে বইমেলায় প্রকাশিত হচ্ছে  রেজাউল ইসলাম হাসুর প্রথম গল্পবই ‘একটি ছুরি অথবা কুড়িটা ঘুমের পিল’। বইটি প্রকাশ করেছে বেহুলাবাংলা । প্রচ্ছদ করেছেন সারাজাত সৌম। ফ্লাপ লিখেছেন কবি পিয়াস মজিদ।

‘একটি ছুরি অথবা কুড়িটা ঘুমের পিল’ বইটি সম্পর্কে জানতে চাইলে রেজাউল ইসলাম হাসু বলেন, প্রতিটা কবিতায় একটা অথবা অনেকগুলো গল্প থাকে। তবে গল্পের গল্প ও কবিতার গল্পের মধ্যে পার্থক্য হলো এই যে, গল্পে সেই গল্প বা গল্পগুলো মূর্ত করে তোলার প্রয়াস থাকে কিন্তু কবিতায় সেরকম কিছু থাকে না; বিমূর্ত কিংবা উহ্য করবার কসরত থাকে কেবল।

আমার অনেক গল্পে আমি কবিতার ঢঙ জেনেশুনেই ব্যবহার করেছি। ফ্রানৎস কাফকা, গ্যাব্রিয়েল গার্সিয়া মার্কেস শাহাদুজ্জামান, শহীদুল জহির কিংব বিশ্বের অনেকের গল্পেই এটা আছে। কাফকার ধেয়ান কিংবা এক গ্রাম্য ডাক্তার পড়লে মনে হবে আপনি কোনো কবিতার বই পড়ছেন অথচ সেটা একটা গল্পের বই। অন্যদিকে শাহাদুজ্জামানের অগল্প কিংবা শহীদুল জহিরের শিরোনামহীন পড়লে আমাদের একই তৃপ্তি বা রসবোধ জাগ্রত হবে। এটা পুরনো নদী দীর্ঘকালব্যাপী ভাঙতে ভাঙতে একটা নতুন নদী-অবয়ব সৃজনের মতো। এসব আর্টেরই একটা প্রবাহমানতা, যুগ-যুগ সময় ও ভাষা বিবর্তনের একটা প্রতিফলন কিংবা প্রতিচ্ছায়া।

প্রতিটা গল্পেরই নিয়তি থাকে। সেই নিয়তির দুভার্গ্যগুলোই আমাকে লিখতে বাধ্য করে। নিজে থেকে আমি কিছুই লিখতে পারি না। আমার কোনো গল্প আসে না, যতক্ষণ না অব্দি সেইসব গল্প আমাকে সশস্ত্র বাহিনীর মতো তাড়া করে ফিরে—জেরুজালেমের যিশুর মতো ক্রশবিদ্ধ করে এবং যতক্ষণ না আমি পুনরুত্থিত হই আমার ভেতর। যতক্ষণ না অব্দি আমি সঙ্গমশীলদের মতো দলিত-মথিত হই সেইসব গল্পের কাম ও কান্তির সৌরভে।

বাস্তবতার নির্বিকার মিলেমিশে নির্মাণ করি আমার গল্পের অধি-বাস্তবতা—যাকে আমরা ছেড়ে দিই দুভার্গ্যরে হাতে নিয়তির নির্মম পরিহাসের প্রহসন বলে। অথবা যাকে আঁকড়ে ধরে আত্মহননের আগেও আমরা বাঁচার কৌশলসমূহ রপ্ত করার কঠোর কসরত করি পরমার মতো। অথবা কখনো সখনো অসম্মত যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ি স্বেচ্ছায় অথবা অনিচ্ছায়।

বইটি সম্পর্কে কবি পিয়াস মজিদ বলেন, ‘একটি ছুরি অথবা কুড়িটা ঘুমের পিল’ রেজাউল ইসলাম হাসুর প্রথম গল্পবই; গল্পগুলো এমন ঘটনা ও অনুভব-প্রবাহের একান্ত সাক্ষাৎকার দেয় পাঠককে যা তার কাছে প্রথম নয়। নিত্যেরই বাস্তব, নিদেনপক্ষে প্রত্যহ-কল্পনার কোটরে তাদের অধিবাস কিন্তু এই গল্পকার কহনকথার এমন মুন্সিয়ানা আর মুগ্ধকর এমন ভাষায় উপস্থাপন করেছেন যে, মনে হতে থাকবে আশ্চর্য, অভাবিত, অনিন্দ্য। একইসঙ্গে নৃশংস, ভয়াবহ এবং বিধ্বংসীও বটে।

হাসু গল্পকে খোঁজ করেন না বরং যেন গল্পময় দুনিয়াই হাসুকে খোঁজ করে। সেই দুনিয়া; যেখানে জেগে থাকা ও নিদ্রা তাদের পার্থক্য হারিয়েছে। কিচেন ও কবর তাদের দূরত্ব ভুলেছে। ঘরের বাইরে থেকে করোনা নামের অনিবার্য অতিথি ডোরবেল বাজাচ্ছে। কর্পোরেটের ছায়ায় বেচাকেনা চলছে রোদ, বৃষ্টি, মেঘ, প্রেম আর একান্ত মিলনের মৌসুম। ব্যক্তি একক হারিয়ে যাচ্ছে নগরের রাস্তায় নেহায়ৎ একটা ধূলি-সংখ্যা হয়ে।

এমন বিকট বাস্তবে, স্বপ্নের কবিতা আর গান তাদের প্রকরণ ও সুর নিয়ে হামলে পড়ে রেজাউল ইসলাম হাসুর গল্প-কলমে। বলতে থাকে, পালিয়ে যেও না। লিখো, যা দেখছো আর যেসব দৃশ্য চিত্রায়িত হওয়ার আগেই মৃত অথবা আসন্ন যা-কিছু গল্পগাথা—তুমি মানুষ হিসেবে আঁচ করতে পারছ, ঘ্রাণ পাচ্ছ; সেসব বুনে যাও তোমার গল্পের জমিনে।

রেজাউল ইসলাম হাসু অতঃপর লিখেন কয়েকটি গল্প। লিখলেন একটি গল্পের বই। ‘একটি ছুরি অথবা কুড়িটা ঘুমের পিল’। আসুন পড়ি হাসুকে। পড়ি আমাকে। আমাদেরকে।

ছুরির ছায়া দেখতে পাব, ঘুমের পিল মুখে দেব; বইটা শেষ করার পর ছুরি হাতে কালঘুমকে খুন করতে নিশ্চিত ছুটে যাব।

উল্লেখ্য, রেজাউল ইসলাম হাসুর জন্ম রংপরে, ১৯৮৭ সালে। হিসাববিজ্ঞানে সরকারি বাঙলা কলেজ, ঢাকা থেকে স্নাতকোত্তর অর্জন করেছেন। পেশাজীবন শুরু করেন সহ-সম্পাদক হিসেবে। বর্তমানে একটা বেসরকারি সংস্থায় উন্নয়ন-কর্মী হিসেবে কাজ করছেন। বাংলা ভাষার সৃজনে অনলাইন সাহিত্য পত্রিকা বেলাভূমি সম্পাদনা করেন।

‘একটি ছুরি অথবা কুড়িটা ঘুমের পিল’ বইটি পাওয়া যাবে বেহুলাবাংলায়। স্টল নং-৫২১-৫২২-৫২৩। মূল্য ২৫০ টাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *